Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সাধারণ তথ্য

আমাদের সম্পর্কেঃ

 

বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই) বাংলাদেশের জাতীয় মান সংস্থা। ১৬ মে ১৯৮৩ সালে তৎকালীন মন্ত্রীপরিষদ অধীনস্থ সরকারী প্রতিষ্ঠান সেন্ট্রাল টেস্টিং ল্যাবরেটরী (সিটিএল) ও আধা-সরকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস ইন্সটিটিউশন (বিডিএসআই) একীভূত করার সিদ্ধান্ত নেয়। ২৫ জুলাই, ১৯৮৫ খ্রিঃ তারিখে বাংলাদেশ সরকারের জারীকৃত এক অধ্যাদেশ বলে (যা বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন অধ্যাদেশ ৩৭ নামে পরিচিত) বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস ইন্সটিটিউশন (বিডিএসআই) এবং সেন্ট্রাল টেস্টিং ল্যাবরেটরী (সিটিএল) কে একীভূত করে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই) গঠিত হয়। অতঃপর ১৯৯৫ সালে বাংলাদেশ সরকারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ তৎকালীন কৃষি পণ্য বিপণন ও শ্রেণীবিন্যাস পরিদপ্তরটিও বিএসটিআই’র সংগে একীভূত করা হয়। বর্তমানে শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীনে বিএসটিআই একটি স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান হিসেবে এর উপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে।

 

বিএসটিআই’র মূল দায়িত্ব:

দেশের একমাত্র জাতীয় মান সংস্থা হিসেবে বিএসটিআই’র মূল দায়িত্ব হচ্ছে:

 

ক) দেশে উৎপাদিত এবং আমদানিকৃত যাবতীয় শিল্পপণ্য, রাসায়নিক দ্রব্য,বৈদ্যুতিক ও প্রকৌশল পণ্য, টেক্সটাইল, খাদ্য ও কৃষিজাত পণ্যের জাতীয় মান প্রণয়ন ।

খ) প্রণীত মানের ভিত্তিতে পণ্য সামগ্রীর গুণগত মান পরীক্ষণ/বিশ্লেযণ এবং পরিদর্শনের মাধ্যমে পণ্যের গুণগত মানের সার্টিফিকেশন প্রদান।

গ) ন্যাশনাল মেট্রোলজী ল্যাবরেটরীতে স্থাপিত SI (International System) unit এর ন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড রক্ষণাবেক্ষণ এবং দেশের সকল ল্যাবরেটরী, শিল্প কারখানা, গবেষণা প্রতিষ্ঠান এবং হাট বাজারে ব্যবহৃতওজন ও পরিমাপক যন্ত্রপাতির ধারাবাহিক সুক্ষতা (Accuracy)নিশ্চিতকরণ।

ঘ) Management System Certification কার্যক্রম বাস্তবায়ন।

 

দি বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন অধ্যাদেশ, ১৯৮৫ এর আওতায় বিএসটিআই কাউন্সিল গঠিত হয়। উক্ত অধ্যাদেশ অনুযায়ী বিএসটিআই'র সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারক বডি হচ্ছে বিএসটিআই কাউন্সিল ।পরবর্তীতে ২০০৩ সালে উক্ত অধ্যাদেশের সর্বশেষ সংশোধনী অনুযায়ী বর্তমানে কাউন্সিলের মোট সদস্য সংখ্যা ৩৩। শিল্প মন্ত্রনালয়ের মাননীয় মন্ত্রী উক্ত কাউন্সিলের সভাপতি ও শিল্প সচিব সহ-সভাপতি। বিএসটিআই’র মহা-পরিচালক (যিনি প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহীও বটে) কমিটির সদস্য-সচিবের দায়িত্ব পালন করেন।

National Standards Body (NSB) হিসেবে বিএসটিআই ১৯৭৪ সালে আইএসও সদস্যপদ লাভ করে। বিএসটিআই  IEC, APMP, BIPM, OIMLএর সক্রিয় সদস্য। এছাড়া বিএসটিআই WTO-TBT, SARSO, Codex, AFIT এর ফোকাল/এনকোয়ারী পয়েন্ট হিসেবে কাজ করছে। বাংলাদেশের একমাত্র National Meltrology Laboratory (NML) ও Bangladesh Standard Time (BST)  ওয়াচ বিএসটিআইতে অবস্থিত ।

বিএসটিআই’র কার্যক্রম মোট ০৬ টি উইংয়ের মাধ্যমে  পরিচালিত হয়। উইং গুলো হলো: মান উইং, সিএম উইং, মেট্রোলজী উইং, রসায়ন পরীক্ষণ উইং, পদার্থ পরীক্ষণ উইংও প্রশাসন উইং। বিএসটিআই'র প্রধান কার্যালয় ১১৬/ক, তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকায় অবস্থিত।  তাছাড়াও বিভাগ/জেলা পর্যায়ে বিএসটিআই এর আঞ্চলিক অফিস রয়েছে। বিএসটিআই’র সেবাকে জনগণের দোরগোড়ায় পৌছে দেওয়ার লক্ষ্যে গত ১০ এপ্রিল ২০১৬ খ্রিঃ তারিখে বিএসটিআই শাখা অফিস, রংপুর চালু হয়েছে যার অবস্থান বাসা- ৪৬/২, রোড-০১, পর্যটন পূর্ব পাড়া, সদর, রংপুর-৫৪০০।